বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ

জানিয়েছেন নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি

by Md Limon
বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ।

       বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ।

বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ। কনে নাফিসা। দুই পরিবারের সম্মতিতে ঘরোয়া আয়োজনে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।
নাফিসা নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায়ী শিক্ষা বিষয়ে অধ্যয়নরত ছিলেন।জিয়াউল হক পলাশ বাংলাদেশের ছোট পর্দার একজন জনপ্রিয় অভিনেতা। তিনি ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ তারিখে তার প্রিয় মানুষের সাথে বিয়ে করেন। বিয়েটি ধাকায় সম্পন্ন হয়েছে। তিনি ছবি, টেলিভিশন ও রেডিও জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক মাধ্যমে অভিনয় করেন।

একই বিশ্ববিদ্যালয়ে তার স্বামী পলাশ অধ্যায়নরত ছিলেন।
জানা যায় গত বছরের নভেম্বর মাসে তাদের প্রথম পরিচয় হয়।
সেখান থেকে বন্ধুত্ব এবং বন্ধুত্ব থেকে প্রেম।
তবে পারিবারিকভাবে জানাশোনা ছিল নিজেদের মধ্যে।

পরিবার থেকে নির্ভরযোগ্য বলে বিবেচনা করা হয়েছে নাফিসাকে।
এবং ঘরোয়া ছোট অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের বিবাহ সুসম্পন্ন হয়েছে।
জানা গেছে নাফিসা পড়াশোনার পাশাপাশি একটি কোম্পানিতে কর্মরত আছেন। অর্থাৎ তার নিজস্ব আয় রয়েছে।

পলাশের বিয়ের খবরটি জানিয়েছেন নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিয়ের কিছু ছবিও পোস্ট করেছেন তিনি।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের বিয়ের বিষয়টি অনেক বেশি ভাইরাল হয়েছে। তবে এটি ইতিবাচকভাবে সবার কাছে ছড়িয়ে গেছে।

বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ।

বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ।

বিয়ে করলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ

পলাশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। যেন তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের ও সুন্দর হয়।
তিনি জানিয়েছেন বাবা-মা এর ইচ্ছায় বিয়ে করেছেন তিনি। অর্থাৎ নাফিসা পলাশের বাবা মায়ের প্রিয় পাত্রী।
বিয়ের খবর জানিয়ে অমি লিখেছেন, এই ছেলেটা (পলাশ) তার নতুন জীবনে পা রেখেছে। তার জন্য অনেক দোয়া ও ভালোবাসা। সম্প্রতি পলাশ ও আমাদের লক্ষী নাফিসা তাদের পরিবার ও আমাদের সবার সম্মতিতে ঘরোয়া পরিবেশে বিয়ে সম্পন্ন করেছে। সবাই

পলাশ ও নাফিসার নতুন জীবনের জন্য দোয়া করবেন।
হিসেবে পলাশ যেমন একজন সফল চরিত্রের অধিকারী, তেমনি যেন পারিবারিক জীবনে এবং বিবাহিত জীবনেও তিনি সফল হতে পারেন এই দোয়া চেয়েছেন সবার কাছে।

১৬ই ডিসেম্বর শুক্রবার একটি শুভদিনে তারা বিবাহের কাজ সম্পন্ন করেন। খুব বেশি লোকজনের উপস্থিতি দেখা যায় না। পারিবারিক সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন এবং অত্যন্ত আনন্দ এবং আল্হাদের সাথে বিবাহের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকটির জনপ্রিয়তার কারণ

You may also like

Leave a Comment